আইসিসির নিয়ম ভেঙেও বেঁচে গেলেন আমির

করোনার পর মাঠের খেলার নিয়মে অনেক পরিবর্তন এনেছে আইসিসি। বিশেষ করে ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি আছে যে সব কাজে, সে সব কাজে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

এর মধ্যে একটি হলো-বলে লালা লাগানো। বলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে লালা লাগানোর কাজটি নিয়মিতই করে থাকে ফিল্ডিংয়ে থাকা দল। কিন্তু এই লালার মাধ্যমে করোনা ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি থাকে। তাই আইসিসি কঠোর নিয়ম করেছে, কোনোমতেই বলে লালা লাগানো যাবে না।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শুক্রবারের টি-টোয়েন্টি ম্যাচে আইসিসির এই নিয়ম ভেঙেছেন পাকিস্তানি পেসার মোহাম্মদ আমির। ম্যাচের এক পর্যায়ে দেখা যায়, বলের মধ্যে লালা লাগিয়ে উজ্জ্বল করার চেষ্টা করছেন তিনি।

তবে পাকিস্তানি পেসারের কপাল ভালো। এমন ঘটনায় কোনো ধরনের সতর্কবার্তা বা তিরস্কারের মুখে পড়তে হয়নি। সম্ভবত ম্যাচের মধ্যে আম্পায়ারদের নজরেই আসেনি বিষয়টা।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ-ইংল্যান্ডের টেস্ট সিরিজ চলাকালীন বলে লালা লাগিয়ে ফেলেছিলেন ইংলিশ ক্রিকেটার ডম সিবলি। আম্পায়াররা সেই বল জীবাণুমুক্ত করার পর তবেই খেলা শুরু করেন। আমিরের বেলায় তেমন কিছুই ঘটেনি।

আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী, কোনো দল অভ্যাসবশত বলে লালা লাগিয়ে ফেললে দুইবার সতর্ক করবেন আম্পায়াররা। তবে এরপর একই ম্যাচে এমন ঘটনা ঘটলে ব্যাটিংয়ে ৫ রান কেটে নেয়া হবে। আর বলে লালা লাগানোর পর সেটাকে জীবাণুমুক্ত না করে খেলা শুরু করবেন না আম্পায়াররা।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে বৃষ্টির কারণে ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের মধ্যকার ম্যাচটি মাঝপথে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। প্রথমে ব্যাট করে ১৬.১ ওভারে ৬ উইকেটে ১৩১ রান তুলেছিল ইংল্যান্ড। এরপরই ঝমঝমিয়ে নামে বৃষ্টি।

ম্যাচে দারুণ নিয়ন্ত্রিত বোলিং করছিলেন আমির। উইকেট না পেলেও ১৩ বলে মাত্র ১৪ রান খরচ করেন পাকিস্তানের বাঁহাতি এই পেসার।

 

news source.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *