ভারতে বিনিয়োগ স্থগিত করছে আলিবাবা

ভারতে নতুন করে এখন আর কোনো বিনিয়োগ করতে চাইছে না চীনের বহুজাতিক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আলিবাবা। সংস্থাটির ঘনিষ্ঠ একজন নিশ্চিত করেছেন যে, সাম্প্রতিক সময়ে দু’দেশের মধ্যে চলমান উত্তেজনার কারণে ভারতীয় কোনো কোম্পানিতে নতুন করে কোনো বিনিয়োগ করতে চাইছে না আলিবাবা।

শুধু আলিবাবাই নয়, চীনের অনেক প্রতিষ্ঠানই আপাতত ভারতে বিনিয়োগ স্থগিত করছে। ভারতে কোনো ব্যবসা চালু বা নতুন করে বিনিয়োগের পরিকল্পনা নেই অনেক প্রতিষ্ঠানের। এমনকি যেসব ভারতীয় কোম্পানিতে বিনিয়োগের পরিকল্পনা করা হয়েছিল সেগুলোও স্থগিত রাখা হয়েছে।

ভারতে বেশ কিছু নতুন কোম্পানিতে বিনিয়োগ ছিল আলিবাবার। কিন্তু আলিবাবার নতুন সিদ্ধান্তের কারণে বেশ ধাক্কা খেতে চলেছে এসব প্রতিষ্ঠান। আগামী কয়েক মাসে নতুন করে কোনো বিনিয়োগের কথা ভাবছে না তারা। তবে এর মধ্যেই যে পরিমাণ বিনিয়োগ করা হয়েছে তা সরিয়ে নেওয়া বা শেয়ার তুলে নেয়ার পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে আলিবাবা।

এদিকে, চীনের কাছ থেকে জ্বালানি তেল কেনা বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। দেশটির তেল শোধনাগারগুলো এখন আর চীনের বিক্রেতাদের কাছ থেকে অপরিশোধিত জ্বালানি তেল কিনছে না।

চীনের সঙ্গে সীমান্তে সংঘর্ষে ২০ ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার পর নয়াদিল্লি সীমান্তবর্তী দেশগুলো থেকে তেল আমদানি না করার আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেয়। এর ভিত্তিতেই চীনের কোনো কোম্পানির কাছ থেকে অপরিশোধিত তেল নিচ্ছে না দেশটি।

ভারতের জ্বালানি তেল সংক্রান্ত কোনো টেন্ডারেও চীনের কোম্পানিগুলোকে অংশ নিতে দেওয়া হচ্ছে না। তেল আমদানির জন্য চীনের কোনো তেল ট্যাংকারও ব্যবহার করছে না নয়াদিল্লি।

ভারত ও চীনের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে টানাপোড়েনের প্রভাব বাণিজ্যের ওপর পড়ছে। এর ফলে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যিক লেনদেন কমে যাচ্ছে। ভারত সরকার চীন থেকে বিদ্যুৎ সরঞ্জাম আমদানির ক্ষেত্রেও নতুন কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করেছে।

 

news source.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *