রানআউটের রেকর্ডটি ঘামিয়ে তুলবে ভারতকে

রেকর্ডটির কথা এখনো অজিঙ্কা রাহানে, রোহিত শর্মারা জানতে পেরেছেন কি না, কে জানে! জানতে পারলে হয়তো আফসোস করছেন। আগে জানলে নিশ্চিত এমনটা হতে দিতেন না তাঁরা!

কী রেকর্ড? রানআউটের! সিডনি টেস্টে ভারতের প্রথম ইনিংসে তিন ব্যাটসম্যান রানআউট হয়েছেন। আর রেকর্ডের ভিত্তিতে যদি পূর্বানুমান করতে গেলে বলতে হয়, এই তিন রানআউটই এই টেস্টে ভারতের ভাগ্য লিখে দিয়েছে। আর সেই বিধিলিপিতে ‘জয়’ লেখা নেই। রেকর্ড যে বলে, এর আগে যে ৬ বার কোনো টেস্টে এক ইনিংসে ভারতের তিন বা তার বেশি ব্যাটসম্যান রানআউট হয়েছেন,সেই টেস্টে ভারতের আর জেতা হয়নি! চারটিতে ড্র করেছে, দুটিতে হেরেছে।

২ উইকেটে ৯৬ রান নিয়ে দিন শুরু করা ভারত আজ প্রথম ইনিংসে ২৪৪ রানে অলআউট হয়ে গেছে। নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ২ উইকেটে ১০৩ রান নিয়ে দিন শেষ করা অস্ট্রেলিয়া এখনই এগিয়ে আছে ১৯৭ রানে। ক্রিজে অপরাজিত দুই ব্যাটসম্যান মারনাস লাবুশেনে (৪৭*) ও প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করা স্টিভ স্মিথ (২৯*)। টেস্টের তৃতীয় দিন শেষেই যে চালকের আসনে অস্ট্রেলিয়া, তা আর বলার দরকার পড়ে না।

অথচ তিনটা রানআউট না হলে ভারত আরও ভালো অবস্থানে থাকতে পারত! গত এক যুগে টেস্টে এই প্রথমবার এক ইনিংসে তিন ব্যাটসম্যানকে রানআউট হতে দেখল ভারত। টেস্ট ক্রিকেটই এমনটা দেখেছে প্রায় ছয় বছর পর। সর্বশেষ এক ইনিংসে তিন ব্যাটসম্যান রানআউট হয়েছেন ইংল্যান্ডের, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সেন্ট জর্জে ২০১৫ সালের এপ্রিলে।

ভারতের রানআউটগুলো হয়েছেও কী গুরুত্বপূর্ণ সময়ে! ইনিংসের ৬৮তম ওভারে হনুমা বিহারিকে দিয়ে শুরু। কিছুক্ষণ আগে অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানেকে হারানো ভারত তখন একদিকের ক্রিজে চেতেশ্বর পূজারার ব্যাটে বড় কিছুর আশায়, ঠুক ঠুক করে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের হতাশও করছিলেন পূজারা। বিহারি অন্য প্রান্ত থেকে সঙ্গ দিয়ে যেতে পারলেই হয়তো জুটিটা বড় হতো! কিন্তু মিড অফে বলে ঠেলে রান চুরি করতে গিয়ে জশ হ্যাজলউডের দারুণ থ্রোয়ের শিকার বিহারি (৪)। লম্বা গড়নের শরীর নিয়ে হ্যাজলউড যেভাবে ডাইভ দিয়ে সরাসরি থ্রোতে স্টাম্প ভেঙেছেন, তা দেখে অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারের বুক জুড়িয়ে যাওয়ার কথা।

এরপর কামিন্স-লাবুশেনের যৌথ প্রযোজনায় রানআউট হন অশ্বিন (১০)। সেটিও কখন! পূজারা ফিরে গেছেন ওভার চারেক আগে, ভারতের তখন স্বীকৃত ‘ব্যাটসম্যান’ বলতে ক্রিজের এক পাশে রবীন্দ্র জাদেজা, আর অন্য প্রান্তে যা একটু আশা ছিল টেস্টে চারটি সেঞ্চুরি করা অশ্বিনকে ঘিরেই। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে যশপ্রীত বুমরা একইভাবে ফিরেছেন লাবুশেনের সরাসরি থ্রো–তে। অন্য প্রান্তে তখনো অপরাজিত জাদেজা। শেষ পর্যন্তই অপরাজিত ছিলেন তিনি।

রানআউট তিনটি না হলে ভারতের রান আরেকটু বাড়ত, লড়াইটা আরেকটু জমত—ভারতীয় ক্রিকেটপ্রেমীরা এমনই হয়তো ভাবছেন। রানআউট অন্তত একটি কম হলে তাঁদের মনের খচখচানিও হয়তো একটু কমত! ওই যে, রানআউটের রেকর্ডটাই যে স্বস্তিতে থাকতে দিচ্ছে না রাহানেদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *